শরীরে ভিটামিন ডি কম? লক্ষণ দেখে মিলিয়ে নিন

ভিটামিন ডি-র ঘাটতি অন্যতম গুরুতর অথচ সাধারণ স্বাস্থ্য সমস্যা। এনসিবিআই অনুসারে বিশ্বব্যাপী জনসংখ্যার প্রায় ৫০% মানুষ ভিটামিন ডি-র অভাবে ভোগে। মার্কিন ইনস্টিটিউট অফ মেডিসিনের পরামর্শ অনুযায়ী, গড়ে দৈনিক ১০-২০ মাইক্রোগ্রাম ভিটামিন ডি খাওয়া প্রয়োজন।

  • সূর্যালোকে ভিটামিন ডি উৎপাদিত হয়। হাড় এবং দাঁতের স্বাভাবিক বৃদ্ধির জন্য এবং রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা গড়ে তোলার জন্য গুরুত্বপূর্ণ এই ভিটামিন। এছাড়া, এটি অতিরিক্ত ওজন কামাতে সাহায্য করে।
  • ভিটামিন ডি-র উপস্থিতি মানুষকের অবসাদে ভুগতে দেয় না। তাই শরীরে ভিটামিন ডি-র অভাব ঘটলে নানা সমস্যা দেখা দিতে পারে।

একটু বয়স হতে না হতেই দেখা যায় অনেকেরই কোমরে ব্যথা, হাঁটুতে ব্যথা। এর কারণ শরীরে ভিটামিন ডি-র অভাব। আমাদের দাঁত, হাড় এবং সামগ্রিক স্বাস্থ্যের জন্য ভিটামিন ডি-র অবদান প্রচুর। ক্যালসিয়াম, ম্যাগনেসিয়াম, ফসফেট এবং অন্যান্য জৈব পদার্থের মতো গুরুত্বপূর্ণ খনিজগুলির শরীরে যাতে ভালোভাবে শোষিত হয়, তার জন্যও কাজ করে ভিটামিন ডি।

সূর্যালোকে ভিটামিন ডি উৎপাদিত হয়। হাড় এবং দাঁতের স্বাভাবিক বৃদ্ধির জন্য এবং রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা গড়ে তোলার জন্য গুরুত্বপূর্ণ এই ভিটামিন। এছাড়া, এটি অতিরিক্ত ওজন কামাতে সাহায্য করে। ভিটামিন ডি-র উপস্থিতি মানুষকের অবসাদে ভুগতে দেয় না। তাই শরীরে ভিটামিন ডি-র অভাব ঘটলে নানা সমস্যা দেখা দিতে পারে। কী ভাবে বুঝবেন, আপনার শরীরে ভিটামিন ডি কম আছে কি না?

ভিটামিন ডি-র ঘাটতি অন্যতম গুরুতর অথচ সাধারণ স্বাস্থ্য সমস্যা। এনসিবিআই অনুসারে বিশ্বব্যাপী জনসংখ্যার প্রায় ৫০% মানুষ ভিটামিন ডি-র অভাবে ভোগে। মার্কিন ইনস্টিটিউট অফ মেডিসিনের পরামর্শ অনুযায়ী, গড়ে দৈনিক ১০-২০ মাইক্রোগ্রাম ভিটামিন ডি খাওয়া প্রয়োজন।

ভিটামিন ডি ঘাটতির কারণ

* সানস্ক্রিনের অতিরিক্ত ব্যবহারের ফলে সূর্যালোক ত্বকের গভীরে প্রবেশ করতে পারে না।

* দূষণ বেশি এমন এলাকায় বসবাস।

* বাড়ির ভিতরে বেশি সময় কাটানো।

* ভিটামিন ডি সমৃদ্ধ খাবার না খাওয়া।

* সূর্যের আলো ঢোকে না, এমন স্যাঁতস্যাঁতে বাড়িতে দীর্ঘদিন ধরে বসবাস।

ভিটামিন ডি-র অভাবে সমস্যা

* ক্লান্তি, ব্যথা-যন্ত্রণা, সারাক্ষণ অসুস্থতা বোধ।

* হাড় এবং পেশীতে যন্ত্রণা বা সাধারণ দুর্বলতা যার ফলে সিঁড়ি চড়তে বা মেঝেতে বসার পর উঠতে সমস্যা হতে পারে।

* ভিটামিন ডি-র অভাব খুব বেশি হলে শরীরের বিভিন্ন অংশের হাড় ভঙ্গুর হয়ে যায়।

* অত্যধিক চুল পড়া।

* আঘাত সারতে অনেক সময় নেওয়া।

* অবসাদ

* খাবার হজমে সমস্যা ।

ভিটামিন ডি সমৃদ্ধ খাবার

সূর্যালোকে থাকে ভিটামিন ডি। যা আমরা সহজেই পেতে পারি। তবে কিছু খাবার আছে যা থেকে আমরা ভিটামিন ডি এবং ক্যালসিয়ামে প্রচুর পরিমাণে পেতে পারি। যেমন – টুনা, ম্যাকরেল, স্যামন মাছ, ডিমের কুসুম, সোয়া দুধ, দই, দুগ্ধজাত সামগ্রী, মাশরুম, কমলালেবুর রস, কোকোয়া।

Share

Recent Posts

গোল্ডেন মিল্কশেকের উপকারিতা

গোল্ডেন মিল্ক, হলুদের দুধ নামেও পরিচিত। প্রাচীন ভারতবর্ষের একটি স্বাস্থ্যকর পানীয়, আজ যা পশ্চিমা সংস্কৃতিতে জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে। এই উজ্জ্বল… Read More

February 6, 2023

কুসুম গরম পানিতে শরীর-মন তাজা

শীতের সময় আমাদের শরীর রুক্ষ হয়ে ওঠে, যার দরুন পেটে সমস্যা, খিদে না লাগা থেকে শুরু করে ত্বকের অনেক সমস্যাই… Read More

January 16, 2023

লাল মুলার নানা উপকারিতা

মুলার উপকারিতা অনেক। বিশেষত লাল মুলার। নানাভাবেই এটা খাওয়া যায়। তবে সালাদ করে খাওয়াটা বেশি উপকারী। জানাচ্ছেন খাদ্য ও পথ্যবিশেষজ্ঞ আলমগীর… Read More

January 16, 2023

This website uses cookies.